দুর্ঘটনারোধে বরিশাল নদীবন্দরে বসছে আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার

দুর্ঘটনারোধে বরিশাল নদীবন্দরে বসছে আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার

বরিশাল প্রতিনিধি

অবশেষে দুর্ঘটনারোধে বরিশালসহ দেশের ১৪টি পূর্ণাঙ্গ ও পুরাতন নদীবন্দরের ১৩টিতে প্রথম শ্রেণির আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বর্তমানে ৮টি নদীবন্দরে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পর্যবেক্ষণাগার রয়েছে।

সংশ্লিস্ট সূত্রে জানা গেছে- বাংলাদেশের ১৩টি নদীবন্দরে আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার না থাকায় নৌবন্দরগুলোতে চলাচলরত নৌযানসহ স্থানীয় অধিবাসী ও জেলেদের কালবৈশাখী, টর্নেডো, বজ্রপাতসহ দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার সঠিক ও লিড-টাইম পূর্বাভাস প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে না। এতে প্রায়ই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে বিভিন্ন নৌযান এবং অনেক যাত্রীর প্রাণহানি ও মালামালের ক্ষতি হচ্ছে। তাই দুর্ঘটনারোধে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে- ইতোমধ্যেই এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) অনুমোদন করেছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৮০ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এই প্রকল্প ব্যয়ের পুরোটাই সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে যোগান দেওয়া হবে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতায় বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

আরও জানা গেছে- এই প্রকল্পের আওতায় ১৩টি পূর্ণাঙ্গ নদীবন্দরে পর্যবেক্ষণাগার কেন্দ্রে ও ডরমেটরি ভবন নির্মাণ করা হবে। প্রতিটি কেন্দ্রে আধুনিক স্বয়ংক্রিয় আবহাওয়া যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হবে। একই সঙ্গে কেন্দ্রের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক কাজসহ পূর্বাভাস কেন্দ্রগুলোকে ঢাকা ঝড়সতর্কীকরণ কেন্দ্রের সঙ্গে নেটওয়ার্কিং চালু করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD