মঞ্চ অভিনেতা এস আর শাহ আলমের ইচ্ছে .চলচিত্রে অভিনয় করবে

মঞ্চ অভিনেতা এস আর শাহ আলমের ইচ্ছে .চলচিত্রে অভিনয় করবে

বিনোদন ডেক্সঃ

একজন মঞ্চ অভিনেতার মনের ভীতরে লালন কৃত স্বপ্ন শুধুই যেনো মনের দড়জাকে ঠক ঠক করে, বাস্থবে তাহা পূরণ না হলেও দীর্ঘ ২২ বছরে তার স্বপ্ন বাস্থ্যবাহিত হয়নি, তবুও মঞ্চ অভিনয় করে অনেক সুনাম অর্জন করেছিলো এই ব্যক্তিটি যাহা বহি প্রকাশ করতে সরাসরি তিনি বলতে পেরেছেন,চাঁদপুর জেলার শহরের পৌর এলাকায় তার জন্ম তিনি ছোট বেলায় নিজের স্বপ্ন পুরনের জন্য ১৯৯৫ সালে শহরের পুরান বাজার ক্ষতিমান অনুপম নাট্য গোষ্টীটে প্রথম পদার্পণ রাখেন তারই চাচাতো ভাই নাজমুল ইসলামের হাত দরে, জীবনের প্রথম মুক্তি যোদ্ধ্যের নাটকে অভিনয় করেছিলে গ্রামবাসি হিসেবে,একই বছরে শহরের পি এম বিল্লালের হাত দরে নবরুপ থিয়েটার নামক একটি সাংস্কৃতিক সংঘঠন প্রতিষ্টা করেন, ততকালিন সময়ে তার সহ যোদ্ধা হিসেবে ছিলেন এডভোকেট শামিম,বি এম শাহজাহান,কামরুল ইসলাম,সুপ্রিয় দত্ত, রাশেদ, এর পরে ৭১ রাজাকার নাটকে ভালো মানের অভিনয় করে তিনি সুনাম কুরাতে থাকে, ১৯৯৭ সালে নটমঞ্চ নামক আরেকটি সংঘঠন প্রতিষ্টা করে তার পরের বছর শিশু থিয়েটার প্রতিষ্টা করে তিনি ধীরে ধীরে বিভিন্ন নাটকের বিভিন্ন চরিএ নিয়ে অভিনয় করে এক নতুন জীবনের অধ্যয়ের নাম অর্জন করে, তার অভিনয় জীবনে মলউডের কঞ্চুস নাটকে লাল মিয়া চরিএে অভিনয় করে জেলাবাসির কাছে দক্ষ মঞ্চ অভিনেতা হিসেবে পরিচিত লাভ করেন,পর পর ওই কমিডি চরিএে ১৮ বার অভিনয়ের পাশাপাশা, বদ হজম নাটকের শাহজাহান বাদশা হিসেবে অভিনয় করে আরো সুনাম অর্জন করে প্রায় ওই চরিএে ১৩ বার অভিনয় করেন, টানা অভিনয় জগতে সরকারি কয়েকটি নাটকে অভিনয় করেন জেলার প্রতিটি থানায়,তার হাতে গড়া অশংখ্য মন্চ অভিনয় শিল্পি তৈরি করেছেন, যাদের মধ্যে মাহিনুর সুলতানা, রিপা আক্তার, সহ আরো অনেকে,অভিনয় শিল্পি হিসেবে তিনি ছোট খাটো কিছু নাটকের নির্দেশক হিসেবে কাজ করে তাহা মন্চায়িত করেছেন, যেমন সরকারি মহিলা কলেজে যৌতক, বাল্য বিয়ে ও জেলার প্রতিটি থানায় ইউনেসেফ এর সরকারি নাটক বার্ড ফ্লু ও এইচ আই ভি প্রতিরোধ নামক নাটক গুলি,তিনি শুধু চাঁদপুর শিল্প কলা একাডিমি কিনবা জেলার বিভিন্ন থানায় অভিনয় করেন নি, তিনি বাংলাদেশ শিল্প কলা ও লক্ষি পুর জেলায় অভিনয় করেছেন, তাছাড়া চাঁদপুর মুক্তি যোদ্ধ্যের বিজয় মেলা ও পুরান বাজার বিজয় মেলা সহ বৈশাখি মেলায় একাদ্বিক বার বিভিন্ন নাটকে অভিনয় করেছেন, এর পরে তিনি সুন্দরী নাটক লিখে চাঁদপুর শিল্প কলায় নটমন্চের ব্যনারে মন্চায়িত করেছেন ২০০৪ সালে, ততকালিন সময়ে মুক্তি যোদ্ধের বিজয় মেলায় তার রচিয়িত নাটক টি স্হান পেয়ে দ্বিতীয় বার মন্চায়িত হলে তিনি একজন নাট্য রচিয়িতা হিসাবে ক্ষ্যতি লাভ করেন,২০০৭ সালে পরিচালক শন্তেস পুরি চাঁদপুরি নামক ব্যক্তির প্রস্তাবে দুইটি মডেলিং গানে অভিনয় করে সবাইকে তাক লাগান, যেই মডেলিং ভিডিও সিটি দেশ ব্যাপি প্রচার করা হয়েছে, এর পরে ২০০৮ সালে মডেল সামাজিক সংঘঠন নামক একটি সাংস্কৃতিক সংঘঠন প্রতিষ্টাতা করে প্রতিষ্টাতা আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেন, দীর্ঘ বছরে তার অভিনয়ে সাধারন মানুষকে হাসি কান্না উপহার দিলেও তার স্বপ্ন পুরণ করতে পারেনি সময় সল্পতা ও কালের পরির্বতনের কারনে,চাঁদপুরের কোন এক সময়ের প্রবীন কিং বন্তি কমিডি এই অভিনেতা চলচিএের বড় পর্দায় অভিনয় করার ভাগ্য হয়নি তবে তিনি এখনো হাল ছেরেনি, বিগত কয়েক বছর অভিনয় জগত থেকে দুরে থাকলে ও আবার নিজের অভিনয়ের পথে আসবেন বলে আমাদের জানান,আমরা মনে করি চাঁদপুর জেলায় এই দক্ষ অভিনেতা নির্দেশক নাট্য রচীযিতার মত অসংখ্য অভিনয় শিল্পি রয়েছে যারা আজ ও তাদের দক্ষ অভিনয়ের মূর্ল পায়নি তাদের মূর্লায়ন করতে চলচিএ কিনবা টেলিভিশনের পরিচালকদের দৃষ্টি দিলে চাঁদপুর থেকে একজন অভিনয় শিল্পি ক্ষ্যতি লাভ করবে গোটা দেশ জুরে,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD