সিকিমের প্রথম বিমানবন্দর চালু হচ্ছে অক্টোবরে

সিকিমের প্রথম বিমানবন্দর চালু হচ্ছে অক্টোবরে

আন্তর্জাতিক

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের নয় বছর পর অবশেষে প্রথম বিমানবন্দর চালু হতে যাচ্ছে ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্য সিকিমে। ভুটান, তিব্বত এবং নেপালের সীমানা এলাকায় পাকইয়ং নামে ওই বিমানবন্দর থেকে আসছে ৪ অক্টোবর শুরু হবে বাণিজ্যিক ফ্লাইট।

সোমবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আনুষ্ঠানিকভাবে বিমানবন্দরটির উদ্বোধন করেন।

ভারতের সব রাজ্যে থাকলেও সিকিমই ছিল একমাত্র, যার বিমানবন্দর ছিল না। সীমান্ত এবং পর্যটন গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে অনেক আগে থেকেই রাজ্যটিতে বিমানবন্দরের প্রয়োজনীতাও ছিল ব্যাপক। কিন্তু সে সুযোগ থেকে তাদের বঞ্চিতই করা হয়েছিল।

তারপর অবশেষে ২০০৯ সালে ওইখানে পাকইয়ং বিমানবন্দরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়। দীর্ঘ নয় বছরে স্থাপনা শেষে সোমবার প্রত্যাশিত এ বন্দরটির উদ্বোধন করেন মোদী।

বিমানবন্দরটি চালু হলে হিমালয় অঞ্চলে অবস্থিত আবদ্ধ রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ বাড়বে। সেইসঙ্গে এ সুবিধা বাড়ায় রাজ্যের পর্যটন খাতেও উন্নতি হবে।

পাকইয়ং উদ্বোধনের জন্য রোববার (২৩ সেপ্টেম্বর) হেলিকপ্টারে করে রাজ্যটির রাজধানী গঙ্গতোকে যান নরেন্দ্র মোদী। সেখানে তাকে স্বাগত জানান, রাজ্য গভর্নর গঙ্গা প্রসাদ ও মুখ্যমন্ত্রী পাওয়ান চামলিং।

এদিকে, বিমানবন্দরের উদ্বোধন শেষে সেখানকার একটি স্কুলে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

এর আগে রোববার তিনি টুইটে বলেছিলেন, আমি পাকইয়ং বিমানবন্দর উদ্বোধন করতে যাচ্ছি আগামীকাল। যা উদ্বোধন করলে আমাদের যোগাযোগের আরও উন্নয়ন হবে এবং সিকিমের লোকজন অনেক সুবিধা পাবে।

এ বিষয়ে সিকিমের প্রধান সচিব একে শ্রীবাস্তব বলেন, বিমানবন্দরটি ২০১ একরের বেশি জায়গা নিয়ে বিস্তৃত। পাকইয়ং গ্রামের দুই কিলোমিটার উঁচু পাহাড়ের উপরে বিমানবন্দরটি স্থাপন করা হয়েছে। যা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় চার হাজার ৫০০ ফুট উচ্চতায়।

পাকইয়ং বিমানবন্দরের পরিচালক আর মঞ্জুনাথ ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আগামী ৪ অক্টোবর থেকে পাকইংয়ে বাণিজ্যিক ফ্লাইট শুরু হবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD