জননেত্রি শেখ হাসিনার ৭২তম জন্মদিনে বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের বিভিন্ন কর্মসূচি পালন

জননেত্রি শেখ হাসিনার ৭২তম জন্মদিনে
বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের বিভিন্ন কর্মসূচি পালন

ফাতেমা আক্তার রানী

বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনা এর ৭২তম জন্মদিন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের উদ্যোগে ২৮ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাব কনফারেন্স লাউঞ্জে (৩য় তলায়) ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা ও মানবতা’ শীর্ষক আলোচনা সভা, জন্মদিনের কেক কাটা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ আ.স.ম. ফিরোজ এমপি। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য কবি কাজী রোজী, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইসমাইল, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সদ্য সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ইসমত কাদির গামা ও বাংলাদেশ ছাত্র লীগ এর সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি বাহাদুর বেপারী।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে চীফ হুইপ আ,স,ম ফিরোজ এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা নিজ যোগ্যতা ও গুণাবলীতে মানুষের হৃদয়ে-অন্তরে মিশে আছেন। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যে তিনি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। যা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মহলে প্রশংসিত হচ্ছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা মানবতার ধারক-বাহক হিসেবে কাজ করছেন। তিনি নতুন প্রজন্মসহ সকলের প্রেরণা। প্রধান আলোচকের বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা সর্বস্তরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে সাহসিকতার সাথে কাজ করছেন। তিনি দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি ও মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যে যে সকল কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে তা বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার গুণাবলী নতুন প্রজন্মসহ সকলকে অনুসরণ ও অনুকরণ করা উচিত। জননেত্রী শেখ হাসিনা আজ বিশ্বনেত্রী হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। সভাপতির বক্তব্যে লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতি অব্যাহত রাখতে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট প্রদান করে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে দেশ পরিচালনার দায়িত্বে রাখতে হবে। তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার দক্ষতা, সততা ও গতিশীল নেতৃত্বের ফলে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে। দেশের এই মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখতে জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার নেতৃত্বের কোন বিকল্প নেই। জননেত্রী শেখ হাসিনার গুণাবলী সকলের মাঝে প্রসারিত ও সঞ্চারিত করতে হবে। আলোচনা শেষে জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও দেশ-জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে মিলাদ ও বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালন করেন, অনুষ্ঠানের সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল। জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে কেক কাটা, কবিতা পাঠ ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয় । সংগঠনের চাঁদপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান সউদ এর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বিশ্ব বাঙালি সম্মেলনের সভাপতি কবি আব্দুল খালেক, বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি জিন্নাত আলী খান জিন্নাহ, দৈনিক বঙ্গজননী পত্রিকার সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কামরুজ্জামান জিয়া প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সংগঠনের নেতাকর্মী ছাড়াও সমমনা বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD