পুলিশ সদস্যকে লাঞ্ছিত করলেন কথিত ‘আ. লীগের ক্যাডার’

পুলিশ সদস্যকে লাঞ্ছিত করলেন কথিত ‘আ. লীগের ক্যাডার’

বরিশাল প্রতিনিধি

| রেজিস্ট্রেশন ও হেডলাইটবিহীন একটি মোটরসাইকেলের বেপরোয়া চালককে আটকে ঠিকভাবে গাড়ি চালানোর পরামর্শ দেয়ায় লাঞ্ছিত হতে হয়েছে বরিশাল মেট্রোপলিটনে পুলিশের এক সদস্যকে। তবে ওই পুলিশ সদস্যর পরিচয় পাওয়া না গেলেও লাঞ্ছনাকারীর পরিচয় পাওয়া গেছে। এছাড়া এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরায় নিন্দার ঝড় বইছে।
লাঞ্ছনাকারী ব্যক্তির নাম শাওন খান (২৩)। সে বাংলাবাজার এলাকার মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল নগরীর বাংলাবাজার এলাকার নিউ হাউস রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, বাংলাবাজার এলাকার নিউ হাউস রোডে নগরীর অমৃত লাল দে মহাবিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে (কালো শার্ট পরিহিত) বেপরোয়া মোটরসাইকেল চালনা করায় তাকে ঠিকভাবে মোটরসাইকেল চালানোর পরামর্শ দিতে থাকেন একজন পুলিশ সদস্য।

এমনকি সেই মোটরসাইকেলটির রেজিস্ট্রেশন ও হেডলাইটও ছিল না। একপর্যায়ে ওই এলাকার একজন ব্যক্তি (লাল টি শার্ট পরিহিত) সিগারেট হাতে নিয়ে মোটরসাইকেলটির পাশে এসে বলেন মোটরসাইকেলটি তার। একপর্যায়ে ওই পুলিশ সদস্যর পরিচয় জানতে চায় লাল টি শার্ট পরিহিত ব্যক্তি।

কিছুক্ষণ পর সে আওয়ামী লীগের লোক বলে পরিচয় দেয় এবং তার কাছে র‌্যাব পুলিশ কোনো ব্যাপার না বলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। কাউকে নিয়ম না শেখার জন্যও বলতে থাকে।

একপর্যায়ে রাস্তার পাশে থাকা পুলিশ সদস্যর মোটরসাইকেলটিও ভাঙচুর করে এবং ওই পুলিশ সদস্যকে লাঞ্ছিতও করে আওয়ামী লীগ নেতা পরিচয় দেয়া লাল টি শার্ট পরিহিত ওই যুবক।

পরে জানা গেছে লাল টি শার্ট পরিহিত ওই যুবকের নাম শাওন খান। সেই ওই এলাকারই চিহ্নিত বখাটে। এ বিষয়ে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের একাধিক কর্মকর্তাকে ফোন করা হলেও তারা এই বিষয়ে কেউ মন্তব্য করতে রাজি হননি। এ বিষয়ে ওসির সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়। তবে থানার ইনচার্জকে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD