সাংবাদিক বাধন মানুষ কে লাঠি দিয়ে ধাওয়া করার দায়িত্ব দিলো কে

সাংবাদিক বাধন মানুষ কে লাঠি দিয়ে ধাওয়া করার দায়িত্ব দিলো কে

নিউজ ডেক্স

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে দেশে সচেতনতা করতে প্রশসন পুলিশ নেএি বৃন্ধু এক সাথে মাঠে সাধারণ মানুষকে বুঝিয়ে ঘড়ে থাকার কথা বলেন, কিন্তু সাংবাদিকরা মাঠে সংবাদ সংগ্রহ করে তাহা প্রকাশ করে, যার কারনে যশোর মনিরামপুর কান ধরে উঠ বস করা কে কেন্দ্র করে এসিলেন্ড প্রত্যাহার করেন, কুমিল্লায় এসিলেন্ড পিয়ন নিয়ে বিপাকে লাঠি হাতে নিয়ে তারা করার কারনে, পুলিশের লাঠি চাজের কারনে পুলিশ বিভ্রান্তকর অবস্হ্যা আছে,যাহা আমাদের মত সাংবাদিকদের সংবাদ প্রকাশের কারনে গোটা দেশে টনক নড়েছে,

কিন্ত সাংবাদিক হয়ে যদি সাধারণ মানুষ কে লাঠি দিয়ে তারা করে তাহা ও আইনের বহির প্রকাশের বাহিরে, একজন এসিল্যন্ড আর পুলিশের যদি ওই সব কাজে সাজা হতে পারে তাহলে এমন কলংকিত সাংবাদিক এর সাজা হওয়া উচিত, আর কে দায়িত্ব দিলো সাংবাদিক কে লাঠি হাতে নিয়ে সাধারণ মানুষ কে ধাওয়া করার জাতি তা জানতে চায়।
মঙ্গল বার চাঁদপুর শহরের পুরানবাজার কয়লা ঘাট নদির পারে মেহনতি শ্রমিক ও গাছ ব্যবসায়িরা বসে আছে এমন সময় চাঁদপুর টিভির বাঁধন বামক সাংবাদিক মটর সাইকেলে এসে গাড়ি থেকে নেমে হাতে লাঠি নিয়ে মারার জন্য ধাওয়া করলে উপস্থিত মানুষ জীবন বা্চাতে নদির পার থাকা গাছের উপর দিয়ে দৌরে পালায়, বলে তারা জানান, নানু, মনসুর, বিল্লাল সহ আরো কয়েকজন বলেন আজ আমরা ভয়ে যেভাবে দৌরে পালিয়েছি তখন হাত পা ভাঙার সম্বাবনা ছিলো, মনে করেছি ডিবির লোক, পরে জানতে পেলাম সে সাংবাদিক, আমাদূের প্রশ্ন সাংবাদদিক কে কি লাঠি দিয়ে মানুষ পিটানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, আমাদের কাছে ত আরো অনেক সাংবাদিক আসে আর আমমরা কখনো দেখি নাই সাংবাদিক মানুষকে লাঠি দিয়ে ধাওয়া করতে,

আজ জীবনে প্রথম দেখলাম আজ সাংবাদিক নামের মহান পেশাকে কলংন্ক করেছে বাঁধন নামের সাংবাদিক, যাহা সাংবাদিক সমাজের পাপ্য ছিলো না,
এদিকে সচেতন মহল বলেন সাংবাদিক কে মানুষ পেটানোর দায়িত্ব সরকার বা কোন আইন
দেয় নি তাহলে সে এমন কাজ কেনো করলে, এটা কি তার অপরাধ নয় পুলিশ আর এসিলেন্ডের যদি অপরাধ হয়ে থাকে তহলে এহেন কান্ডে তার বিচার হওয়া উচিত,

এদিকে চাঁদপুর অন লাইন প্রেস ক্লাবের সভাপতি শেখ মহসিন বিষয়টি শুনে
দুখ্য প্রকাশ করে বলেন এটা বাধন আইনের বাহিরে কাজ করেছে তখন
যদি দৌরে পালানো মানুষ
আহত হতো তাহলে কে এর দায় কে নিতো, আমরা এর নিন্দা
া জানাই তার সাথে মনে করি তার অপরাধের সাজা হলে আর কখনো কোন সাংবাদিক এমন কান্ড ঘটাবে না,
আমরা মনে করি আমাদের কাছে সকল অপরাধী সমান তাই একজন সাংবাদিক এর এমন কান্ড সংবাদ করে প্রকাশ করতে হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD