না ফিরলে বেতন কাটা হবে,

না ফিরলে বেতন কাটা হবে,

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

ঢাকায় ফিরে যেতে দৌতলদিয়া ঘাটে ভীড় জমাচ্ছেন গার্মেন্টসে কর্মরত শ্রমিকরা। করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের যেখানে এত তোড়জোড়, সেখানে নিয়ম ভেঙে কেনই বা ঢাকায় ফিরছেন? এমন প্রশ্নে জবাবে অনেক শ্রমিক জানান, কারখানায় উপস্থিত না হতে পারলে তাদের বেতন কাটা হবে। হয়তোবা চাকরিটাও হারাতে হবে, তাই এ পরিস্থিতিতেও ঢাকার দিকে ছুটে চলা।

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ইতোমধ্যে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার। এছাড়া যেকোনো ধরনের লোকসমাগম কমাতে মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তবুও এমন পরিস্থিতিতে ঢাকাগামী শ্রমিকদের জনস্রোত থামানো যাচ্ছে না। সরকারের দেওয়া বেঁধে ছুটি শেষ হওয়ার আগেই পোশাক কারখানা খুলে যাওয়ায় চাকরি বাচাঁতে ঢাকার দিকে ছুটছেন এসব মানুষ।

আজ শনিবার দুপুর থেকে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় ঢাকাগামী শ্রমিকদের ব্যাপক ভিড় দেখা যায়। ঘাটে এসে লঞ্চ কিংবা ট্রলারে নদী পারাপার বন্ধ থাকায় শত শত মানুষ গাদাগাদি করে ফেরিতে পার হচ্ছেন। এছাড়া গণপরিবহন বন্ধ থাকায় ফরিদপুর-দৌলতদিয়া মহাসড়কে পায়ে হেঁটে, ভ্যান-ট্রলি এবং পিকআপ ভ্যানে করে নিজ নিজ গন্তব্যে ছুটছেন পোশাক শ্রমিকরা।

অনেকে জানান, অতি কষ্ট করে দৌলতদিয়া ঘাট পর্যন্ত এসেছেন। এখান পর্যন্ত আসতে এলাকা প্রতিজনের প্রায় ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা ভাড়া লেগেছে। উপায় না পেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়েই ঢাকার পথ ধরেছেন।

ঢাকার মহাখালীর পোশাক কারখানার শ্রমিক গোলেজান বিবি বলেন, ‘কারখানা খুলে গেছে তাই যাচ্ছি। আজ কারখানায় উপস্থিত না হতে পারলে যে কয়দিন ছুটি পাইছি, কর্তৃপক্ষ সে কয়দিন অনুপস্থিত দেখাবে। যার কারণে অতিরিক্ত টাকা দিয়েই কারখানায় যাচ্ছি।’

সাইদুল নামে আরো এক পোশাক শ্রমিক বলেন, ‘আমি গাজীপুরের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করি। কুষ্টিয়া থেকে দৌলতদিয়া ঘাট পর্যন্ত আসতে সাড়ে তিনশ’ টাকা লেগেছে। পথে যে ভাড়া তার চেয়ে পাঁচ সাত গুণ ভাড়া চাচ্ছে পিক-আপ ভ্যানের চালকরা। আমার কাছে এত টাকা নাই, তাই বাধ্য হয়ে মোবাইল কম দামে বিক্রি করে দিয়ে যাচ্ছি।’

গোয়ালন্দ ঘাট থারার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আশিকুর রহমান বলেন, দক্ষিণাঞ্চলের সব মহাসড়কে আঞ্চলিক গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। এছাড়া কাটা গাড়িও বন্ধ আছে। এই মহাসড়কগুলোর বিভিন্ন স্থানে পুলিশের চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। তবুও গতকাল থেকে পোশাক কারখানার শ্রমিকরা দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌ-পথ পাড়ি দিয়ে তাদের নিজ নিজ গন্তব্যে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD