সত্যের সংগ্রাম চলছে, চলবে.ইয়াসমিন আক্তার

সত্যের সংগ্রাম চলছে, চলবে.ইয়াসমিন আক্তার

ডেক্স রিপোর্ট

মিথ্যার বিরুদ্ধে সত্যের সংগ্রাম সবার জন্য অবশ্য কর্তব্য হিসাবে গণ্য। লক্ষ করলে দেখা যায়, যখন নারীরা অবলা হয়ে থাকে-তখনই নারীরা নির্যাতিত হয়। ইতিহাস দেখুন, রাসুলাল্লাহ (সা.) যখন দেখলেন মক্কার নিযাতিত নারীদের এই করুন অবস্থা, তখন তিনি ইসলামের আদর্শ শিক্ষা দিয়েই নারীদের বীরাঙ্গনা বানালেন। সেই অবলা নারী যখন সবলা হলো তখন কেউ আর তাদের দিকে কুদৃষ্টিতেও তাকাতে সাহস পেল না। আজকে নারীদের সেই সংগ্রামী ইতিহাস জাতিকে ভুলিয়ে দেয়া হয়েছে। তাদের আবারও ধর্মের নামে কুসংস্কারে, ফতোয়ার বেড়াজালে আবদ্ধ করে রেখে জাহেলিয়াত চর্চা করা হচ্ছে। এর ফলে নারীরা অবলা হয়েছে আর বিভিন্ন ভাবে নির্যাতিত হচ্ছে।
.
আমরা ইসলাম শিখব আল্লাহর পবিত্র কোরআন আর আল্লাহর রসুলের জীবনী থেকে। পবিত্র কোরআনে কোনো এবাদতের ক্ষেত্রে নারী পুরুষের জন্য আলাদা হুকুম নেই, দীন প্রতিষ্ঠা করার যে হুকুমগুলো রয়েছে সেখানেও নারী-পুরুষের জন্য আলাদা করে বিধান দেয়া হয় নি। আল্লাহ বলেছেন, হে মো’মেনগণ তোমাদের জন্য সালাহ ফরজ করা হইল, তোমাদের জন্য সওম, যাকাহ্ পর্দা ইত্যাদি ফরজ করা হইল। আল্লাহ আরও বলেছেন, হে মো’মেনগণ তোমাদের জন্য জেহাদ (সর্বাত্ত্বক প্রচেষ্টা) ফরজ করা হইল, তোমাদের জন্য কেতাল (সশস্ত্র সংগ্রাম) ফরজ করা হলো। দীন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে যুদ্ধের হুকুমে পর্যন্ত আল্লাহ নারী-পুরুষ আলাদা করে হুকুম দেননি। উভয়ের জন্য একই হুকুম।
.
মো’মেন হওয়ার সঙ্গাতেই প্রমাণিত হয়ে যায় জান্নাতে যেতে হলে কি শর্ত পূরণ করতে হবে। প্রথমে আল্লাহ্ ও তার রসুলের প্রতি ঈমান আনতে হবে, তাতে কোনো সন্দেহ করা যাবে না, এবং আল্লাহর দীন( জীবন ব্যবস্থা কোরআন) প্রতিষ্ঠার জন্য যাহারা জীবন সম্পদ ব্যয় করে জেহাদ (সর্বাত্তক প্রচেষ্টা) করবে তাহারাই সত্যনিষ্ঠ মো’মেন, তাহারাই জান্নাত যাবে।
.
আল্লাহর রসুলের (সা.) প্রকৃত আদর্শ থেকে পাই, আল্লাহর হুকুম মোতাবেক পুরুষের পাশাপাশি নারীরাও আল্লাহর সত্যদীন প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে অংশ গ্রহণ করেছেন। সমাজের প্রত্যেকটা কল্যাণমূলক কাজে অংশ গ্রহণ করেছেন। ইতিহাস স্বাক্ষী।
আজ কারা পাল্টে দিল সহজ সুন্দর ইসলামের হুকুমনীতি? কারা পাল্টে দিল ইসলামের রুপ?
কারা তৈরি করল এত বিভাজন? যার ফল ভোগ করতে হচ্ছে পুরো মানবজাতিকে?

১৪০০ বছর আগে রসুলাল্লাহ ধর্মীয় গোড়ামি আর কুসংস্কার থেকে শত বাধার পাহাড় ডিঙিয়ে শত অত্যাচার-নির্যাতন অপবাদ সহ্য করে নারীদের সম্মান মর্যাদা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। জাহেলিয়াতের অন্ধকার দূর করে আলো জ্বালিয়েছিলেন। প্রতিষ্ঠা করেছিলেন আল্লাহর সত্যদীন।
.
আজ ১৪০০ বছর পর আল্লাহর অশেষ দয়ায় হেযবুত তওহীদের মাননীয় এমাম শত অপবাদ, অত্যাচার সহ্য করে বর্তমান জাহিলিয়াতের অন্ধকার দূর করে প্রকৃত ইসলামের আলো জ্বালাতে আর নারীদের পূর্ণ সম্মান, মর্যাদা ফিরিয়ে দেয়ার জন্যই অবিরাম সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন। কোন অপশক্তি তাকে দমিয়ে রাখতে পারবে না ইনশা’আল্লাহ।
ইয়াছমিন আক্তার
#HezbutTawheed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD