পুলিশের কঠোর নিরাপত্তায় মানুষের ঢলে নিহত শামীমের শেষ বিদায়।

পুলিশের কঠোর নিরাপত্তায় মানুষের ঢলে নিহত শামীমের শেষ বিদায়।

এস আর শাহ আলম

চাঁদপুর শহরের পুরাণ বাজারে ২৯ জুন বিকেলড়ড় থেকে গভীর রাত পযন্ত পূর্ব শুত্রুতার জের ধরে চলমান সংঘর্ষের ঘটনায় আহত পথচারী শামীম গাজী (২৪) নিহত হয়। তার মৃত্যুতে শোকের মাতম দেখা যায়,

সোমবার দু’ পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া থেকে মুখোমুখি সংঘর্ষে রূপ নেয়।

ওই সংঘর্ষের সময় রাস্তার পথচারী শামীম গাজীর নিজ কর্মস্হল থেকে বাসায় ফেরার পথে তার মাথায় ইট পড়ে মারাত্মক আহত হয়। পড়ে তাকে ঘটনাস্থল থেকে স্হানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে প্রাইভেট প্রিমিয়ার হাসপতালে পরে চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে । পরে হাসপাতালের কতব্যরত চিকিৎসক তাঁর অবস্হা আশংকা জনক দেখে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসারত অবস্থায় সকাল ৭ টার সময় মারা যায়।

শামিমের মৃত্যুর খবরটি আশার সাথে সাথে তাকে এক নজর দেখার জন্য শত শত নারি পুরুষ, যুবক যুবতি শামিমের বৌ বাজার বাড়ি সহ পরাশের মোর থেকে অপেক্ষা করেন, দিন ঘরিয়ে বিকাল পাঁচ টার সময় পুলিশের কঠোর নিরাপত্তার গাড়ি বহরের মাঝে দিযে নিরহ নিহত শামীমের মৃত দেহটি আসে। কিন্তু পুরানবাজার মানুুষের ঢলে আইন সৃংক্ষলা বাহিনী প্রথমত হিমশিম খায়, করোনার প্রভাবে সামাজিক দূরত্ব বজজায় রাখতে পুলিশ কঠোর অবস্হানে গিযে শোকাহত মানুুষের ঢল ভঙ করেন শান্তি পূর্ণ ভাবে।

পরে নিহত শামীমের মৃত দেহটি জিটি রোড মাদ্রাসার পিছনে রেখে হাজারো মানুষ কে এক নজর দেখার জন্য ২০ মিনিটের মত রেখে পুলিশ নিরাপত্বার দাযিত্ব পারন করেন

পরে শামিমের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় মধ্য শ্রীরামদী কবরস্হানে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

এদিকে শামিমের মরদেহের খাটিয়া কাধে তুলে কান্নায় ভেঙ্গেপরেন ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ আলী মাঝি। নিজের কাঁধে করে শেষ ভালোবাসার সমাপনি করেন তিনি, সে সময় প্যনাল মেযর ছিদ্দিকুর রহমান ঢারী, সহ দলীয় নেতা, ফজলু মিঝি, কামাল হাওলাদার, মোবারক বেপারি, নজু ভুইয়া সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

অপর দিকে চাঁদপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিন এর নেতৃত্বে পুরানবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ মাসুদ,ও এস আই, এ এস আই মজিবুুর সহ সঙ্গীয় ফোর্স কবরস্হানে দায়িত্ব পালন করেন, আর ডিবির ইন্সপেক্টর আব্দুর রউফ এর নেতৃত্বে ডিবি সদস্য টিম নঁতুন রাস্তায় নিরাপত্তার দাযিত্বে ছিলেন,

আইন শৃঙ্গলার বাহিনী শামিমের দাফন সম্পন্ন করেন।
একটি টিম রাস্তায় কঠোর অবস্হানে রযেছেন।

এদিকে নিরহ পথচারি শামীমের হত্যাকারিদের আইনের আওতায় এনে কঠিন বিচারের দাবি জানান সচেতন মহল সহ পুরানবাজার বাসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD