ওসির হাতে লাঞ্ছিত সেই এএসআইকে প্রত্যাহার

ওসির হাতে লাঞ্ছিত সেই এএসআইকে প্রত্যাহার

বরগুনা প্রতিনিধি

বরগুনার বামনায় শত শত মানুষের সামনে বসিরহাটে লাঞ্ছনার শিকার ভুক্তভোগীকে বামনা থানা থেকে সরিয়ে বরগুনা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মফিজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ওই এএসআইকে অন্য স্থানে পদায়নের থানা থেকে সরিয়ে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

জানা যায়, রোববার (৮ আগস্ট) রাত ১১টার দিকে ভুক্তভোগী ওই এএসআইকে বরগুনার পুলিশ লাইনে সংযুক্ত হওয়ার জন্য নির্দেশ দেন পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এর পরপরই পুলিশ লাইনে সংযুক্ত হওয়ার জন্য দাপ্তরিক কাজকর্ম থেকে শুরু করে নিজের ব্যাগ গুছিয়ে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি।

>>>এএসআইকে চড় মেরে সমালোচিত বামনার ওসি

ভুক্তভোগী ওই সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) বলেন, রোববার (০৯ আগস্ট) রাতে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত হওয়ার জন্য আমাকে আমার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা নির্দেশ দেন। এজন্য আমি পুলিশ লাইনে সংযুক্ত হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

তবে কেন বা কি কারণে আমাকে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে তা আমি এখনো জানি না।
বরগুনা পুলিশ লাইনের রেসিডেন্সিয়াল ইনচার্জ (আর আই) মোজাম্মেল হক ব বলেন, বামনার অনাকাঙ্ক্ষিত সেই ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই এএসআইকে বরগুনার পুলিশ লাইনে সংযুক্ত হওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

তবে তিনি এখনো পুলিশ লাইনে সংযুক্ত হননি। তবে কেন বা কি কারণে তাকে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে তা আমি অবগত নই।

বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মফিজুল ইসলাম বলেন, আমরা ভুক্তভোগী ওই এএসআইকে একটি সুন্দর পরিবেশে কাজ করার সুযোগ করে দিতে চাই। এই মুহূর্তে তার বামনায় কাজ করার অনুকূল পরিবেশ নেই। তাই তাকে আমরা বামনা থানা থেকে সরিয়ে বরগুনা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করেছি। খুব অল্প সময়ের মধ্যে তাকে আবারও অন্যত্র পদায়ন করা হবে। এই পদায়নে যতটুকু সময় লাগবে ততক্ষণ তিনি বরগুনা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত থাকবেন।

কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদের মৃত্যুর পর গ্রেফতার ও কারাবন্দি শাহেদুল ইসলাম সিফাতের মুক্তির দাবির শনিবার (৮ আগস্ট) মানববন্ধন পণ্ড করার সময় কর্তব্যরত এক এএসআইকে চড় মাররেন বরগুনার বামনা থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন।

চড় মারার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বামনা থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন সমালোচনা করেন অসংখ্য মানুষ। এতে ভাবমুর্তি নষ্ট হয় খোদ পুলিশেরও। ওসি ইলিয়াস হোসেন শত শত মানুষের সামনে যে এএসআইকে চড় মারেন তিনিও বামনা থানায় কর্মরত ছিলেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD