ছাগল চুরির অপবাদে যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন

ছাগল চুরির অপবাদে যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

ছাগল চুরির অপবাদ দিয়ে সিরাজগঞ্জে যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল কলেজপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে যাতে দেখা যায়, ছাগল চোর সন্দেহে ওই যুবককে প্রথমে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর করা হয়। এরপর রশি দিয়ে হাত-পা বেঁধে তার হাতের নখগুলো প্লাস দিয়ে ভেঙে ফেলা হয়।

নির্যাতনকারী হচ্ছেন কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল কলেজপাড়া গ্রামের মাছের পোনা ব্যবসায়ী হ্যাপি। এসময় অজ্ঞাত ওই যুবক চিৎকার চেঁচামেচি করতে থাকেন। যুবকটির আত্মচিৎকারেও নির্যাতন থামেনি।

একপর্যায়ে হ্যাপি যুবককে বলেন, ‘তোর দুইটা আঙ্গুল ভাঙছি, বাকিদের নাম না বললে সবগুলো আঙুল ভাঙবো, তার আগে ছাড়বো না’।

স্থানীয়দের বার বার নিষেধ সত্ত্বেও প্রায় দুই ঘণ্টা নির্যাতনের পর ওই যুবককে ছাড়েন হ্যাপি। ঘটনা জানাজানির পর নির্যাতনকারী গা-ঢাকা দিয়েছে।

এ বিষয়ে কামারখন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান শহিদুল্লাহ সবুজ বলেন, ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমরা দেখেছি। এটি খুবই বর্বর ও অমানবিক। কোনোভাবেই এই ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না। পুলিশকেও বিষয়টি তাৎক্ষণিক জানিয়েছি।

আজ শনিবার সকালে কামারখন্দ থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম জানান, ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখে পুলিশ হন্যে হয়ে নির্যাতনকারীকে খুঁজছে। নির্যাতিত যুবক ও নির্যাতনকারী হ্যাপিকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD