ফরিদগঞ্জে ১৩দিন আটকে রেখে কিশোরীকে ধর্ষণকারী খালু আটক

ফরিদগঞ্জে ১৩দিন আটকে রেখে কিশোরীকে ধর্ষণকারী খালু আটক

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি :

আপন খালু কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হলো এক কিশোরী। টানা ১৩দিনে আটককে রেখে ধর্ষণের পর তাদের উদ্ধারের পর পরিবারের লোকজন অভিযুক্ত ধর্ষক কামরুল ইসলাম (৪০)কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার রূপসা উত্তর ইউনিয়নের রস্তুমপুর গ্রামে ঘটে।

জানা গেছে, রূপসা উত্তর ইউনিয়নের রস্তুমপুর গ্রামের আব্দুল মান্নানের মেয়ে ও গৃদকালিন্দিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফাতেমা আক্তার (১৬)কে তার আপন খালু কামরুল ইসলাম গত দুই বছর পূর্বে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ওই সময়ে সে কৌশলে ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে রাখে। পরবর্তীতে ওই ভিডিওর ভয় দেখিয়ে দীর্ঘদিন সে ফাতেমাকে ধর্ষণ করে আসছে। সর্বশেষ সে গত ২৫ সেপ্টেম্বর ফাতেমা কৌশলে অপরহরণ করে পাশ্ববর্তী লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার নতুন বাজার এলাকায় একটি বাসায় আটকে রাখে। সেখানে টানা ১৩দিন কিশোরীটিকে ধর্ষণ করে।

এদিকে মেয়ের খোঁজ করে এক পর্যায়ে তার পরিবারের লোকজন গত বুধবার রাতে রায়পুর উপজেলার নতুন বাজার এলাকা থেকে কামরুল ইসলামকে আটক করে এবং ফাতেমাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

পরে ফাতেমার মা শামছুন্নাহার বাদী হয়ে ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি আইনে রাতেই ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করে।
এব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শহিদ হোসেন জানান, রাতেই মামলা গ্রহণ করে অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেফতার দেখিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁদপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া ভিকটিম কিশোরীটিকে ডাক্তারি পরীক্ষাসহ অন্যান্য আইনী বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য চাঁদপুর প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD