শাহরাস্তিতে অসহায় ফিরোজার আকুতি “একটি বসত ঘর বদলে দিবে তার জীবন”

শাহরাস্তিতে অসহায় ফিরোজার আকুতি “একটি বসত ঘর বদলে দিবে তার জীবন”

হাসানুজ্জামানঃ

চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের মৃত সিরাজ ফকিরের স্ত্রী ফিরোজা বেগম অত্যন্ত অসহায় জীবন যাপন করছে। তার থাকার এক মাত্র বসত ঘরটি জ্বরাঝির্ণ। স্বামী হারা ফিরোজা অন্যের ঘরে ঝিয়ের কাজ করে প্রতিদিন দু’মুঠো ভাত যোগার করে। একমাত্র কন্যা ছকিনাও বিধবা হয়ে পিতার ভাংগা ঘরটিতেই মায়ের সাথে বসবাস করে। সেও একই কাজ করে রিজিকের ব্যবস্থা করছে।
উক্ত বসত ঘরটি সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যাওয়ায় ব্যবহারে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। পলেথিন জড়িয়ে একটি রান্না ঘর ও একটি টয়লেট ব্যবহার করছে তারা।
ঝিয়ের কাজ করে মেরামত বা নতুন ঘর তৈরী করা সম্ভব নয় তাদের। যে কারনে সরকার দলীয় দায়িত্বশীল নেতার সহযোগিতা ও সরকারের দেয়া একটি ঘর পাওয়ার প্রত্যাশা নিয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে ফিরোজা বেগম।

এবিষয়ে ফিরোজা বেগম বলেন, কয়েক বছর হলো স্বামী মারা গেছে। বিধবা কন্যাকে নিয়ে অসহায় জীবন যাপন করছি। থাকার একমাত্র বসত ঘরটি যেকোনো সময় ভেঙ্গে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টি হলেই উঠোনের মতই পানি হয় ঘরে। ঘুমানো তো দূরের কথা ব্যবহারের সম্ভলটুকুও ভিজে যায়। এমতাবস্থায় মাননীয় সংসদসদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম মহোদয়ের সুনজর ও হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

বাড়ির লোকজন বলেন, ফিরোজা বেগম অত্যন্ত অসহায়। যার খাবার যোগাতে পরের ঘরে কাজ করতে হয়, তার দ্বারা নিজ ঘর মেরামত করা আধো সম্ভব নয়। তাই স্থানীয় এমপি মহোদয়ের মাধ্যমে একটি বসত ঘর পেলে অসহায় এই নারীর মাথা গোজার ঠাঁই হবে বলে তারা মনে করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD