গাজীপুরে শাকিল হত্যাকান্ড প্রকাশিত সংবাদের কোন ভিত্তি নাই- কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল

গাজীপুরে শাকিল হত্যাকান্ড প্রকাশিত সংবাদের কোন ভিত্তি নাই- কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল

তানজিলা ইসলামঃ

গাজীপুরের তারগাছ কুনিয়া পাছর এলাকায় সম্প্রতি স্কুলছাত্র শাকিল হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৩৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল ও তাঁর ছেলে সাব্বির ইসলাম রাজকে জড়িয়ে গত ২০ এপ্রিল ও ২২ এপ্রিল জাতীয় কয়েকটি দৈনিক পত্রিকায় ।“কাউন্সিলর এর পুত্রের নাম সব অপরাধে” ও হত্যাকান্ডের মূল হোতা ধরা ছোঁয়ার বাইরে এমন শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা দিয়েছেন কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল। সংবাদের ব্যাখ্যা ও প্রতিবাদ লিপিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, প্রকাশিত ওই সংবাদে আমাকে ও আমার ছেলে সাব্বিরকে জড়িয়ে যেসব তথ্য উপস্থাপন করে যে সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে তার কোন ভিত্তি নেই। আমার ছেলের বিরুদ্ধে আজ পর্যন্ত থানায় জিডি কিংবা অভিযোগ নেই। রাশেদুজ্জামান জুয়েল মন্ডল একাধিক মামলার আসামী, আমার ছেলে কোন মামলায় জড়িত নন। আমি প্রকাশিত মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই। সংবাদের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি আরো বলেন, ২০১৮ সালের সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আমার ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দী করেছিলেন জুয়েল মন্ডল এর শ্বশুর বিএনপি নেতা ফজলুল হক চৌধুরী। নির্বাচনকালীন সময়ে জুয়েল মন্ডলের নেতৃত্বে আমার লোকজনের উপর হামলা চালায়। এঘটনায় জুয়েল মন্ডলকে প্রধান আসামী করে জয়দেবপুর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। এঘটনার পর থেকে আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ভাবে ষড়যন্ত্র করে আসছে। এছাড়া আমার ছেলে সাব্বির গাছা থানা যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী জুয়েল মন্ডলও সভাপতি প্রার্থী হয়েছেন। এনিয়েও দ্বন্ব চলছে। গত ১২ এপ্রিল আমার এলাকায় এক স্কুলছাত্র শাকিল হত্যাকান্ড ঘটে। এনিয়ে জুয়েল মন্ডল এক সংবাদ সম্মেলন করে আমার ও আমার ছেলের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দিয়ে কয়েকটি পত্রিকায় সংবাদ পরিবেশন করান এবং ষড়যন্তমূলক কথা বলেন। যে সব কথা উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আমার বড়ভাই মোহাম্মদ আলী একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন, আমি সাবেক গাছা ইউনিয়ন পরিষদে ১০ বছর মেম্বারের দায়িত্ব পালন করেছি। বর্তমানে ওয়ার্ড আওয়ামী-লীগের সদস্য সচিব ও কাউন্সিলর। আমার এলাকায় সুনাম রয়েছে। যারা এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত আমি তাদের বিচার চাই। প্রকৃত খুনী যেই হউক না কেনো, তাদের আইনের আওতায় আনার দাবী জানাচ্ছি। স্থানীয় বাসিন্দা আবু হানিফ মুন্সী ও হাজী মনির বলেন, গাজীপুর সিটির ৩৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল গত সিটি নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর ছেলে সাব্বিরের এলাকায় যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। কিছু রাজনৈতিক নেতা ষড়যন্ত্রমূলক ও প্রতিহিংসাবশত কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলালের পরিবার নিয়ে কথা বলছে। এদিকে ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ বলছেন, সাকিল হত্যাকান্ডের ঘটনায় আমরা বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছি এবং জবানবন্দীও নিয়েছি। সেখানে কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল কিংবা তার ছেলে সাব্বির এঘটনায় জড়িত নন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD