সরকারি অনুদান পেয়েছে ২০ চলচ্চিত্র

সরকারি অনুদান পেয়েছে ২০ চলচ্চিত্র

বিনোদন ডেক্স

প্রতি বছরের মতো এবারও চলচ্চিত্রশিল্পে মেধা ও সৃজনশীলতাকে উৎসাহিত করতে চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য অনুদান দিচ্ছে সরকার। এবার ২০টি চলচ্চিত্র অনুদানের জন্য নির্বাচিত হয়েছে।

১৯৭৬-৭৭ অর্থবছর থেকে দেশীয় চলচ্চিত্রে সরকারি এ অনুদান চালু করা হয়। মাঝে কয়েক বছর বাদে প্রতিবছরই অনুদান দেওয়া হচ্ছে।

সেই ধারাবাহিকতায় ২০২০-২১ অর্থবছরে অনুদানপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রের নাম প্রকাশ করেছে তথ্য মন্ত্রণালয়।
মঙ্গলবার (১৫ জুন) এক প্রজ্ঞাপনে মাধ্যমে ঘোষণা করা হয়েছে ২০টি চলচ্চিত্রের নাম।

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক শাখায় ৬০ লাখ টাকা অনুদান পাচ্ছেন প্রযোজক ও পরিচালক জেড এইচ মিন্টুর চলচ্চিত্র ‘ক্ষমা নেই’। একই শাখায় যথাক্রমে ৬০ ও ৬৫ লাখ টাকা অনুদানের জন্য নির্বাচিত হয়েছে- প্রযোজক ও পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘সাড়ে তিন হাত ভূমি’ এবং বদরুন নেছা খানমের প্রযোজনায় উজ্জল কুমার মণ্ডল পরিচালিত ‘মৃত্যুঞ্জয়ী’।

শিশুতোষ শাখায় ৫০ লাখ টাকা অনুদান পাচ্ছে এফ এম শাহীন প্রযোজিত ‘মাইক’। তার সঙ্গে এটি যৌথভাবে পরিচালনা করবেন হাসান জাফরুল। একই শাখায় ৬০ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছে লুবনা শারমিনের ‘নুলিয়াছড়ির সোনার পাহাড়’।

সাধারণ শাখায় অনুদানের জন্য নির্বাচিত হয়েছে ১৫টি চলচ্চিত্র। ৬৫ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছে মিটু সিকদার প্রযোজিত ও পরিচালক কাজী হায়াতের ‘জয় বাংলা’। প্রযোজক জানে আলমের ‘জামদানী’ পেয়েছে ৬৫ লাখ টাকা। এ চলচ্চিত্রের পরিচালক অনিরুদ্ধ রাসেল। সর্বোচ্চ ৭০ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছে জাহিদুর রহিম অঞ্জন প্রযোজিত ও পরিচালিত ‘চাঁদের অমাবস্যা’। এছাড়া বাকি সবগুলো চলচ্চিত্র ৬০ লাখ টাকা করে অনুদান পেয়েছে।

‘রইদ’ চলচ্চিত্রের জন্য অনুদান পেয়েছেন প্রযোজক জয়া আহসান। এর কাহিনীকার ও পরিচালক মেজবাউর রহমান সুমন। অমিতাভ রেজা চৌধুরী পরিচালিত ‘পেন্সিলে আঁকা পরী’ অনুদান পেয়েছে। তার সঙ্গে সিনেমাটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছেন মেহেজাবীন রেজা চৌধুরী ও মো. আসাদুজ্জামান। প্রযোজক ও পরিচালক অরুণ চৌধুরীর ‘জলে জ্বলে’ চলচ্চিত্র অনুদানের জন্য নির্বাচিত হয়েছে।

অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাসের প্রযোজনা, পরিচালনা ও চিত্রনাট্যে ‘অসম্ভব’ অনুদান পেয়েছে। একই সঙ্গে মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেনের ‘ভাঙন, রকিবুল হাসান চৌধুরীর (পিকলু) ‘দাওয়াল’, রেজাউর রহমান খান প্রযোজিত ও ইকবাল হোসাইন চৌধুরী পরিচালিত ‘বলী’, তামান্না সুলতানা প্রযোজিত ও আবদুস সামাদ খোকন পরিচালিত ‘শ্রাবণ জোৎস্নায়’, আশুতোষ ভট্টাচার্য (আশুতোষ সুজন) প্রযোজিত ও পরিচালিত ‘দেশান্তর’, খোরশেদ আলম খসরু প্রযোজিত ও এস এ হক অলিক পরিচালিত ‘গলুই’, মাহফুজুর রহমান প্রযোজিত ও ইব্রাহিম খলিল মিশু পরিচালিত ‘দেয়ালের দেশ’, দেলোয়ার হোসেন দিলু প্রযোজিত ও কবিরুল ইসলাম রানা (অপূর্ব রানা) পরিচালিত ‘জলরঙ’ সাধারণ শাখায় এ বছর অনুদানের জন্য নির্বাচিত হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD