চাঁদপুর বিআইডব্লিউটিএর রেস্ট হাউজে আপত্তিকর অবস্থায় পতিতাকে ধরলেন এলাকাবাসী

চাঁদপুর বিআইডব্লিউটিএর রেস্ট হাউজে আপত্তিকর অবস্থায় পতিতাকে ধরলেন এলাকাবাসী

চাঁদপুর প্রতিনিধি

চাঁদপুর বিআইডব্লিউটিএর রেস্ট হাউজে গার্ড আরিফ (৩০) ও শরিফা বেগম (১৯) নামের এক নারীকে আপত্তিকর অবস্থায় ধরলেন স্থানীয় কিছু যুবক।

শনিবার (১৭ জুলাই) রাত ১১ টায় বিআইডব্লিউটিএর রেস্ট হাউজ এ ঘটনাটি ঘটে। তবে এসময় রেস্ট হাউজের ভেতরের একটি কক্ষে নাইট গার্ড ছাড়াও বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তা কায়সারুল ইসলাম ছিলেন।
গার্ড আরিফ শেরপুর জেলার নাড়িতাবাড়ির আমিজলের ছেলে।
পতিতা শরিফা বেগমের সিলেট জেলার জৈনতা থানায় বাড়ি। তার কথিত স্বামী ট্রাক চালক আরিফ চাঁদপুর শহরের মাদ্রাসা রোডে থাকে। ঘটনার দিন রাতে নাইট গার্ড এর মাধ্যমে পতিতাকে বন্দর কর্মকর্তার রেস্টহাউজের ভিতর প্রবেশ করার পর স্থানীয় যুবকরা দেখে ফেলে।

স্থানীয়রা জানায়, গার্ড আরিফ বিভিন্ন সময়ে নারীদের পাইলট হাউজে এনে অসামাজিক কার্যকলাপ করে থাকে।
বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তা কায়সারুল ইসলামের জন্য গার্ড আরিফ পতিতা শরিফা বেগমকে কন্টাক করে এনেছে।
শনিবার রাতে স্থানীয় যুবকরা ঘটনাটি দেখে হাতেনাতে বন্দর কর্মকর্তার রেস্টহাউজের ভিতর থেকে আটক করে। তবে কর্মকর্তা কক্ষে থাকা অবস্থায় গার্ড এমন কর্মকান্ড করার সাহস পায় কিভাবে। ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য বন্দর কর্মকর্তা নিজের দায় এড়াতে গার্ড আরিফের উপর দোষ চাপায়। পরে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য বিভিন্ন দালাল চক্রের সহযোগিতায় চেষ্টা চালায়।
প্রায় রাতে বন্দর কর্মকর্তার রেস্টহাউজের ভিতর বহিরাগত পতিতাদের এনে আনন্দ-ফুর্তিতে মেতে উঠে। ঘটনা ঘোলাটে দেখে তড়িঘড়ি করে বন্দর কর্মকর্তা আটক পতিতাকে তার লোকজনদের মাধ্যমে অটোরিকশায় উঠিয়ে বাড়িতে পৌঁছে দেয়।

এই ঘটনাটি তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানায় স্থানীয়।
এ বিষয়ে বন্দর কর্মকর্তা কায়সারুল ইসলাম জানান, ঘটনার দিন আমি অন্য কক্ষে অবস্থান করেছিলাম গার্ডস এই মেয়েটিকে নিয়ে ভিতরে ঢুকানোর বিষয়টি আমি অবগত নই। তবে এ ধরনের ঘটনা যাতে না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখবো।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD