দেবিদ্বারে শুরু হচ্ছে ঐতিহ্যবাহী পোনরা পৌষ ক্রান্তি মেলা

শাহীন আলম, দেবিদ্বার (কুমিল্লা): কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলা ঐতিহ্যবাহী পোনরা পৌষ ক্রান্তি মেলা। বুধবার থেকে শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখনও মেলেনি কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের অনুমতি।
ঐতিহ্যবাহী পোনরা পৌষ কান্তি মেলা বাংলা মাসের পৌষ-মাঘের শুরুর দিকে মেলা অনূষ্ঠিত হয়। এ মেলা বাংলাদেশের র্শীষ স্থানীয় মেলাগুলোর মধ্যে অন্যতম। ঐতিহ্যবাহী এ মেলায় দেশের প্রত্যান্ত অঞ্চল নয় সু-দুর ইরান, পাকিস্থান, পাশ্ববর্তী দেশ ভারত থেকে অসংখ্য দর্শনার্থী, ব্যবসায়ী ও ক্রেতার ভিড় জমে উঠে। এই মেলা মূলত কাঠের মেলা হিসাবে পরিচিত। কিন্তু দেড় দর্শকের নির্যাতন ও অব্যবস্থাপনার কারনে কয়েক বছর মেলা থমকে যায় বিগত ২/৩ বছর ধরে পুনরায় মেলার গতিফিরে আসে । এদিকে মাস ব্যাপী কাঠের মেলায় দেশের কক্রবাজার,চট্রগ্রাম,নোয়াখালী, সিলেট, বি-বাড়িয়া, সাভার নরসিংদীসহ বিভিন্ন অঞ্চলের প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ীরা আর এ মেলায় মালামাল নিয়ে আসতে শুরু করেছ। অত্র অঞ্চলের সংস্কৃতির অংশ হিসাবে যুগ যুগ ধরে দেবিদ্বার, ব্রাক্ষ্মণপাড়া, বুড়িচং, হোমনা, দাউদকান্দি, চান্দিনা, কসবা, নবীনগর উপজেলাধীন হিন্দু মুসলিম সম্প্রদায় পৌষক্রান্তি মেলার সময় উৎসবে মেতে উঠে। বিভিন্ন এলাকার শিশু,কিশোর যুবক,যুবতী আবাল,বৃদ্ধারাও মেলায় কেনা কাটার জন্য অর্থকড়ি জমাতে থাকে। প্রতি বছর মেলা এলে সার্কাস, চরকি, কুটির শিল্প, মিষ্টান্ন কাচাঁবাজার, দ্রব্য, কুমারের তৈজস,লোহা,পিতল,এলমুনিয়াম, মেয়েদের কসমেটিক, ক্যালেন্ডার, বেত শিল্পের দোকানিরা বসে হরেক রকম দ্রব্য নিয়ে। এক প্রান্তে কাঠ ও পারটেক্রের বিভিন্ন আসবাবপত্র সহ নানা আয়োজনে ভরে উঠে মেলা প্রাঙ্গন।
এ ব্যাপারে দেবিদ্বার উপজেলা অফিসার ও পৌর প্রশাসক মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, এখনও পযর্ন্ত আমরা জেলা থেকে কোন অনুমতি পাইনি। পাইলে বিস্তারিত জানাতে পারব।

Print Friendly

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD