নির্যাতনকারী কোন প্রকার রাজনৈতিক আশ্রয়-প্রশ্রয় নিয়ে শাস্তি থেকে নিস্কৃতি পেতে পারে ন হানিফ (এমপি)

নির্যাতনকারী কোন প্রকার রাজনৈতিক আশ্রয়-প্রশ্রয় নিয়ে শাস্তি থেকে নিস্কৃতি পেতে পারে ন হানিফ (এমপি)

রফিকুল ইসলাম কুষ্টিয়া

রবিবার (২৫শে অক্টোবর) কুষ্টিয়ায় সম্মিলিত সামাজিক জোট কর্তৃক আয়োজিত নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে যুব সমাজ ও সামাজিক সংঠনের ভুমিকা শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়ার উন্নয়নের রুপকার, মাটি ও মানুষের প্রাণপ্রিয় জননেতা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ (এমপি)।

জননেতা মাহবুবউল আলম হানিফ (এমপি) বলেন, নারীর প্রতি সহিংসতা সৃষ্টিকারী ও নির্যাতনকারী কোন প্রকার রাজনৈতিক আশ্রয়-প্রশ্রয় নিয়ে শাস্তি থেকে নিস্কৃতি পেতে পারে না। এদের কোন দল নেই, এদের কোন আশ্রয় নেই। এদের জন্য সর্বোচ্চ শাস্তিই অবধারিত হওয়া উচিত।

তিনি বলেন, ১৮ কোটি মানুষের অতি সামান্য একটি অংশ এই ধরনের হীন অপরাধের সাথে জড়িত। এই ধরনের জঘণ্য মানুষগুলো না থাকলে এ জাতির এমন কোন ক্ষতি হবে না বরং জাতির বৃহৎ অংশ নিরাপত্তা বোধ করবে। মানবিক বোধের কত অধঃপতন ঘটলে একজন মানুষ নারীর প্রতি সহিংস হয়ে উঠতে পারে তার নজির আমরা দেখেছি অতীতে। এটা দেশের এই সুসময়ে দেখতে চাই না।

তিনি আরও বলেন, অনেকেই এই ঘটনাকে রাজনৈতিক রং চড়ানোর চেষ্টা করছে। বলার চেষ্টা করছে রাজনৈতিক আশ্রয়-প্রশ্রয় নিয়ে কিছু মানুষ এটা করছে, এটা সঠিক নয়। প্রমাণ রাখেন শত শত এ ধরনের ঘটনার কয়টা রাজনৈতিক ? মানুষ যখন বিবেকবোধ হারিয়ে ফেলে তখন সেখানে এ ধরনের অপরাধের ঘটনা ঘটে, এটা আমরা সমাজে দেখতে পাচ্ছি। বিস্ময় নিয়ে দেখছি এ ধরনের অপরাধের সাথে জড়িয়ে যাচ্ছে স্কুল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, মাদ্রাসার শিক্ষক এমনকি মাদ্রাসার ইমামরাও। এইসব মানুষরুপী জানেয়ারদের হাত থেকে শিশুরা রক্ষা পাচ্ছে না।
এদের কারোর নিস্তার পাওয়ার সুযোগ দেওয়া উচিত নয়। আইন আনা হয়েছে, সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত হবে।

সম্মিলিত সামাজিক জোটের চেয়্যারম্যান, দৈনিক কুষ্টিয়া ও দি কুষ্টিয়া টাইমসের সম্পাদক ড. আমানুর আমান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জননেতা আতাউর রহমান আতা ও কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জোবায়ের হোসেন চৌধুরী। সেমিনারে মুল আলোচনা করেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারন সম্পাদক প্রফেসর ড. মাহবুবুল আরফিন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD