সংবাদ প্রকাশের পরে ভাঙন রাস্তায় ইট শুুরকি ফেলে চলাচলের উপযোগী করলো আনোয়ার গাজী

সংবাদ প্রকাশের পরে ভাঙন রাস্তায় ইট শুুরকি ফেলে চলাচলের উপযোগী করলো আনোয়ার গাজী

এস আর শাহ আলম

আমাদের পএিকায় এই প্রতিবেদকের হরিণা ফেরি ঘাট থেকে চান্দ্রা রাস্তাটি মরণ ফাঁধে পরিণত শিরোনামে রোব বার একটি সংবাদ প্রকাশিত হলে সড়ক বিভাগ সহ ১২ নং ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের টনক নরে,
রোব বার সকালেই সড়ক ও জন বিভাগের ইঞ্জিনিয়ার সহ ইউ পি চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু পাটোয়ারি ভাঙন এলাকা পরিদর্শন করেন, সে সময় চেয়ারম্যান বলেন পানি নিশ্কাশনের জন্য ড্রেনেজ করার পরিকল্পনা করে পাশের পুকুরে দেবার কথা ছিলো, কিন্তু মালিকানাদ্বিন পুকুর থাকায় তারা বাধা দেয়, যার কারনে পানি বন্ধি হয়ে রাস্তাটি ভেঙে যায়, আমরা মনে করি পূর্বের ড্রেন টি মাটিতে ভরে গেছে যাহা পরিস্কার করে পানি নিশ্কাশন ব্যবস্হা করলে রাস্তাটি ভাঙন রোধ হবে, এবং অচিরেই এর সমাদান করবো,

এদিকে সংবাদ প্রকাশের পর পর এলাকার একজন ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ি নিজেই উদ্দেগ নিয়ে নিজের অর্থায়নে ইট কিনে সকালেই ভাঙন অংশ টি ভড়াট করে , চলাচলের উপযোগী করে গড়ে তুলে।

সরজমিন দেখা যায় এলাকার ফানিচার ব্যাবসায়ি মোঃ আনোয়ার হোসেন গাজি,, নিজেই ইট কিনে নিজের হাতে ভাঙন অংশে ভেলে মরণ ফাঁদ থেকে হাজারো মানুষ কে বাচাঁন, তিনি বলেন প্রতিদিন এই ভাংঙন অংশে ছোট বড় যান বাহন গুলি দূর্ঘটনার শিকার হয়, যাহা সংস্কার করার কথা কর্তৃ পক্ষের থাকলেও তারা নজর দেই নি, আপনার মাধ্যমে এই জনসচেনতা সংবাদ প্রকাশি হলে আমির দৃষ্টিতে আশে আমি যদি কিছু ইট ফেলে মরণ ফাঁদ টি ভড়াট করি তাহলে প্রান হানির ঘটনা থেকে সাধারণ মানুষ বাঁচবে, তাহা ভেবে নিজে উদ্দেগ নেই,

তবে আপনার মাধ্যমে সড়ক বিভাগ সহ ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের নজরে পড়েছে, তাই ওনারা পরিদর্শন করে বলেছেন জরড়ি ব্যাবস্হা গ্রহন করবেন,
আমি দাবি করি সড়ক বিভাগ যদি চান্দ্রা চৌরাস্তা থেকে মোরের সরকারি টয়লেট পর্যন্ত একটি ড্রেন নিন্মান করে সরকারি খালে পানি প্রশারিত করেন তাহলে এই সড়কটি যান চলাচলে উপযোগী হয়ে থাকবে, আমি তাদের দৃষ্টি কামনা করে আপনাদের মত সত মহত সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানাই,

মূলত বিষয় বিগত কয়েক মাস ধরে হরিণা চৌরাস্তা থেকে চান্দ্রা রাস্তাটি ছোট বড় গর্তে পরিণত হয়ে পড়েছে, যার ফলে চ্ট্রগ্রাম থেকে আশা খুলনা যাওয়ার প্রধান রাস্তাটি মরণ ফাঁধে পরিণতের মাধ্যে দিয়ে জীবনের ঝুকি নিয়ে চলছে, তার আলোতে সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছিলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD