নববর্ষের শাড়ি কিনে না দেওয়ায় কিশোরীর আত্মহত্যা

নববর্ষের শাড়ি কিনে না দেওয়ায় কিশোরীর আত্মহত্যা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় পহেলা বৈশাখের শাড়ি কিনে না দেওয়ায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে আরিফা খাতুন (১৪) নামে এক কিশোরী আত্মহত্যা করেছে।

আরিফা উপজেলার শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের চর সোনাইকাজী গ্রামের শামছুল হকের মেয়ে ও চর কুলাঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) দুপুরে শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের চর সোনাইকাজী গ্রামে নিজ ঘরে গলায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে সে।

শিমুলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান এজাহার আলী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আসন্ন বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে কয়েকদিন ধরেই বৈশাখী শাড়ি কিনে দেওয়ার জন্য মায়ের কাছে বায়না ধরে আরিফা।

মা জাহেনুর বেগম ক্ষেতের ভুট্টা বিক্রি করে শাড়ি কিনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।
বৃহস্পতিবার সকালে শাড়ির জন্য ফের মায়ের কাছে বায়না ধরলে তিনি আরিফাকে রাগারাগি করেন।

এতে অভিমান করে দুপুরের দিকে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে আরিফা।
পরে পরিবারের সদস্যরা নিজ ঘরে ধরনার সঙ্গে ঝুলতে দেখে দরজা ভেঙে আরিফার নিথর দেহ নামিয়ে পুলিশে খবর দেন।

ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজীব কুমার রায় জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD