চাঁদপুর বিষ্ণুপুর গৃহবধুর লাশ উদ্ধার শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার অভিযোগ পরিবারের

চাঁদপুর বিষ্ণুপুর গৃহবধুর লাশ উদ্ধার শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার অভিযোগ পরিবারের

চাঁদপুর প্রতিনিধি

।। চাঁদপুর সদর উপজেলার ১নং বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের হাসাদী খাশের বাড়ি থেকে গৃহবধুর, লাশ উদ্ধার শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার অভিযোগ করেছেন নিহতের পরিবার

খবর পেয়ে সদর মডেল থানা পুলিশ মঙ্গলবার সকালে স্বামীর বাড়ি থেকে
শহানাজ বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে। স্বামীর বাড়ির একজন লোকের দাবি শাহানাজ আত্মহত্যা করেছে। কিন্তু নিহতের বড় ভাই খোরশেদ অভিযোগ করে বলেন, ভোনের স্বামীসহ শ্বশুড় বাড়ির লোকজন শ্বাসরুদ্ধ সহ তাকে অত্যাচার করে হত্যার পর তার গলায় কাপড় পেছিয়ে ঘরের খাটের ওপর পেলে রেখে আত্মহত্যার নাটক সাজিয়েছে।
মঙ্গলবার বিকালে পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য নিহত গৃহবধুর লাশ চাঁদপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।
জানা গেছে, মতলব পৌরসভার দীঘলদী মাল বাড়ীর মরহুম ওয়াজদ্দিন মালের মেয়ে শাহানাজ বেগমের সাথে প্রায় ৮ বছর আগে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১নং বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের হাসাদী গ্রামের
মরহুম সিরাজুল ইসলাম প্রধানীয়ার ছেলে আনিছ প্রধানীয়ার সাথে বিয়ে হয়। নিহত গৃহবধুর ভাই জানান, মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে তাকে মোবাইল ফোনে বাড়ি থেকে জানান আমার ভোন মারা গেছে।
তিনি অভিযোগ করেন, তার ভোনকে স্বামী, তার বোন, মা সহ পরিকল্পিতভাবে শ্বাসরুদ্ধ সহ অমানবিক ভাবে অত্যাচার করে হত্যার পর গলায় কাপড় পেছিয়ে ঘরের ভিতরে শানাজ বেগমের লাশ খাটের ওপর পেলে রেখে আত্মহত্যার প্রচারণা চালায়। শাহানাজের স্বজনরা মেয়ে হত্যার বিচার চান।
নিহত শাহনাজের স্বামী আনিছ প্রধানীয়া জানান, তার স্ত্রী গলায় শাড়ী পেছিয়ে পেনের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। কি কারণে আত্মহত্যা করেছে এবং এ সময় আপনি কোথায় ছিলেন এমন প্রশ্নের সঠিক জবাব দেননি।
চাঁদপুর সদর মডেল থানার এসআই
আওলাদ জানান, গৃহবধুর লাশ উদ্ধারের পর সুরত হাল প্রতিবেদন তৈরী করেন।
গলায় গামছা পেছানো ছাড়াও পায়ের পাশে অরনা পাওয়া গেছে।
মঙ্গলবার বিকালে ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠিয়েছেন। প্রাথমিকভাবে আমরা কিছু বলতে পারছিনা। তবে পিএম রিপোর্টে হত্যার আলামত উঠে আসলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD