মেঘনায় বাল্কহেড ডুবি: নিখোঁজ দুইজনের লাশ উদ্ধার

মেঘনায় বাল্কহেড ডুবি: নিখোঁজ দুইজনের লাশ উদ্ধার

চাঁদপুর প্রতিনিধি:

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় মেঘনা নদীতে এম.ভি মক্কা মদিনা-৩ নামের একটি বাল্কহেড (বালু বহনকারী ইঞ্জিনচালিত নৌকা) ডুবে গেলে ইঞ্জিনরুমে আটকা পড়ে যান ২ জন। পরে দীর্ঘসময় উদ্ধার অভিযান চালিয়ে নিহত দুইজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত দুই শ্রমিক হলেন বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলার পশ্চিম ঝাড়াখালী গ্রামের জাহাঙ্গীর হাওলাদারের পুত্র মিজানুর রহমান (২৫) ও সালাম শিকদারের পুত্র সাজু শিকদার (২৩)।

অতিরিক্ত বালুর চাপে বাল্কহেডটির বলগেট ফেটে গেলে এটি পানিতে ডুবে যায় বলে জানা গেছে। ঘটনার পর বৃহস্পতিবার (১০ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে ডুবুরি দল দুইজনের লাশ উদ্ধার করে। মেঘনা নদীর মোহনপুর-দশআনি লঞ্চঘাটের মাঝামাঝি পয়েন্টে বুধবার (৯ জুন) দিবাগত রাত অনুমানিক আড়াইটার দিকে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

উদ্ধার অভিযানে চাঁদপুর কোস্ট গার্ড ছাড়াও নারায়ণগঞ্জ বিআইডব্লিউটিএ, নৌ পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস সহ স্থানীয় ডুবুরি দল অংশ নেয়। পরে উদ্ধারকৃত মরদেহ মোহনপুর নৌ-পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

বাল্কহেড থেকে বেঁচে ফিরা সুকানি মহিউদ্দিন ও নাঈম সিকদার সময়ের কন্ঠস্বরকে জানায়, ‘গতকাল বুধবার চাঁদপুরের বালু মহাল থেকে ১০ হাজার ফুট বালু ভর্তি করে নারায়ণগঞ্জের পাগলা ফতুল্লার উদ্দ্যেশ্যে রওনা হলে সন্ধ্যা ৭টার দিকে মোহনপুর-দশআনি লঞ্চঘাটের মাঝামাঝি পয়েন্টে বাল্কহেডটি নোঙর করা হয়। পরে রাত অনুমানিক আড়াইটার সময় অতিরিক্ত বালুর চাপে বলগেটটি ফেটে পনিতে ডুবে যায়। এসময় বলগেট থেকে ৪ শ্রমিকের মধ্যে ২ জন সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও ইঞ্জিনরুমে থাকা বাকি দুই শ্রমিক গিজার মিজানুর ও স্টাফ সাজু পানিতে তলিয়ে যায়।

বিআইডব্লিউটিএ’র নারায়ণগঞ্জ নৌ সংরক্ষণ ও পরিবহন বিভাগের সহকারী পরিচালক মো: মাসুদুল হক সময়ের কন্ঠস্বরকে জানান, ‘আমরা দীর্ঘ সময় ধরে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছি। তবে ইঞ্জিন রুমের দরজা খুবই সংকীর্ণ হওয়ায় আমাদের ডুবুরিরা সিলিন্ডার নিয়ে ভেতরে প্রবেশ করতে পারছিলো না। পরে আমরা উপস্থিত সকল ডুবুরি দলের সহায়তায় লাশ দুটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD