বাবা মেয়ের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীরা পিটিয়ে বৃদ্ধকে হত্যার অভিযোগ

বাবা মেয়ের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীরা পিটিয়ে বৃদ্ধকে হত্যার অভিযোগ

চাঁদপুর প্রতিনিধি

চাঁদপুর যমুনা রোডে বাবা মেয়ের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে সুযোগ বুঝে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিবেশীরা পিটিয়ে ৬৫ বছর বয়সী বৃদ্ধকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
শনিবার যমুনার রোড বেপারি বাড়ি থেকে নিহত নাছির হাওলাদারের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ক্ষিপ্ত হয়ে শুক্রবার রাত সাড়ে বারোটায় প্রতিবেশী মতিন প্রধানিয়ার পুত্র কানা বাদশা ও তার ভাই বিল্লাল প্রধানীয়া সহ পরিবারের ৫ জন একত্রিত হয়ে অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে বৃদ্ধাকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।
আহত অবস্থায় বৃদ্ধা নাছির হাওলাদার নিজ বাড়িতে করুণ মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রশিদের নেতৃত্বে এস আই সুমন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসে।
নিহত নাছির হাওলাদার চাঁদপুর মাছ ঘাটে দীর্ঘদিন যাবত শ্রমিক হিসেবে কাজ করেছেন।

পরিবারের স্বজনদের অভিযোগ শুক্রবার দুপুরে নিহত নাছির হাওলাদারের বড় মেয়ে জোনাকি বেগম তার বাড়িতে এসে বাবা মাকে না বলে চাউল নিয়ে যায়। এই নিয়ে বাবা মেয়ের সাথে বাক-বিতণ্ডা সৃষ্টি হয়। এসময় প্রতিবেশী বিল্লাল প্রধানীয়া এসে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সুযোগ বুঝে অতর্কিতভাবে বৃদ্ধা নাছির হালদারকে মারধর করে।
এ নিয়ে দুই পরিবারের মাঝে বাক-বিতণ্ডা সৃষ্টি হয় অবশেষে রাত সাড়ে বারোটায় পুনরায় কানা বাদশা তার ভাই বিল্লাল প্রধানসহ পরিবারের ৫জন এসে অতর্কিতভাবে নাছির হাওলাদার ও তার স্ত্রীকে মারধর করে। গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে নাছির হাওলাদার পল্লী চিকিৎসককে কাছ থেকে ঔষধ নিয়ে বাড়িতেই সেবা নেয়। পরে তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় গুরুতর জখম হওয়ায় অবশেষে শনিবার রাতে নিজ বাড়িতেই করুণ মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করলেও অবশেষে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ থানায় নিয়ে যায়।
এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তার পরিবারের স্বজনরা হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানায়। ঘটনার পর থেকেই হামলাকারীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD