কাজী আজিমউদ্দিন কলেজে ছাত্রলীগ নেতা অনিককে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথাড়ি কোপ।

কাজী আজিমউদ্দিন কলেজে ছাত্রলীগ নেতা অনিককে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথাড়ি কোপ।

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ

কাজী আজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অনার্স সমাজকর্ম ১ম বর্ষের ছাত্র কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সামছুল ইসলাম অনিক কে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে ক্ষত বিক্ষোত জখম করে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা।

গাজীপুর মহানগরীর সদর থানাধীন দক্ষিণ ছায়াবিথী কাজী আজিমউদ্দিন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গাজীপুর সদর থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগীর বাবা ।

ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজী আজিমউদ্দিন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় এর সাধারণ ছাত্র মেরাজুর রহমান স্বাধীন, মোঃ শান্ত, মোঃ তুষার, মোঃ আসাদ, মোঃ মেহেদী, মোঃ মনির হোসেন, মোঃ রুদ্র ঘটনার বিবরনে জানাযায় দক্ষিণ ছায়াবীথি কাজী আজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ গেটের সামনে।
সেলিম রেজার সন্ত্রাসী ছেলে বহুল আলোচিত যুবলীগ নেত লিয়াকত হত্যার আসামি ফাহিম রেজা বিগত কিছুদিন যাবৎ আওয়ামী লীগ এর বেনার ফেস্টুন লাগানো ও ব্যাক্তিগত বিষয়াদি নিয়ে কাজী আজিমউদ্দিন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ছাত্রলীগ নেতা সামছুল ইসলাম অনিক এর সহিত শত্রুতা করিয়া ভয়ভীতি হুমকি প্রদর্শন করিতেছে।

বুধবার ১০/১১/২০২১ইং দুপুর ২ ঘটিকার সময় কাজী আজিমউদ্দিন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় মাঠ লিচু তলায় (রেগডে এইচএসসি বেচ ২০২১)
উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠান চলাকালে ১/ সন্ত্রাসী ফাহিম রেজা এর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ২/ পাঁচতলা ছায়াবীথি মধ্যপাড়া নজরুল ইসলাম এর ছেলে মোঃ ইমন ৩/ বদরের বস্তি শ্মশানঘাট সংলগ্ন উত্তর ছায়াবীথি কাজিন উদ্দিন এর সন্ত্রাসী ছেলে রাজা সরকার ৪/উত্তর ছায়াবীথি হাক্কানী
সোসাইটি রফিকুল ইসলাম চৌধুরীর ছেলে মোঃ সাগর ৫/ভারারু চৌরাস্তা বাজারের পূর্ব পার্শে আবুল হোসেন এর ছেলে কামরুল ইসলাম শাকিল ৬/আমিনুল ইসলাম জীবন বরুদা বালুর মাঠ গাজীপুর সদর এদের ১০/১২ জনের একটি সন্ত্রাসী দল দীর্ঘ দিন যাবৎ গাজীপুরের বিভিন্ন জায়গায় চাঁদা দাবি, চাঁদা উত্তোলন চুরি ডাকাতি মাদক সেবন ও দীর্ঘ দিন যাবৎ বিক্রি করে এরা একাধিক হত্যা ও মাদক মামলার আসামি।

সন্ত্রাসী দল কাজী আজিমউদ্দিন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ছাত্রলীগ নেতা সামছুল ইসলাম অনিক কে হত্যার উদ্দেশ্য কলেজে ডুকে হাতে পিস্তল ধারালো রামদা সুইস গিয়ার নাইফ চাপাতি ধারালো ছেন লাঠি লোহার রড দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দ্বারা এলোপাতাড়ি আগাত করে।
পিঠে গারে, দুই হাতের তালু, দুই হাতের আংগুল, হাটুর উপরে, পিঠে সহ বিভিন্ন জায়গায় শরিরের চামড়া কেটে মাংস বেরিয়ে আসে রড ও লাঠির আগাতে গুরুতর জখম হয় মাটিতে পড়িয়া গেলে ঘটনা দেখিয়া ডাক চিৎকারে উপস্থিতে কলেজের ছাত্ররা এগিয়ে আসে তখন গাজীপুরের আলোচিত লিয়াকত হত্যার খুনি ফাহিম রেজা পিস্তল উঠাইয়া সুযোগ মতো তোকে দেখে দিব বলে পালিয়ে যায়।

সংবাদ পাইয়া গাজীপুর সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ ও সহপাঠী অন্যান্য ছাত্ররা সামছুল ইসলাম অনিক কে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনিয়া ভর্তি করেন মেডিকেলে গিয়ে দেখা যায় অনেক রক্ত ক্ষরন ও অনেক সেলাই দেওয়া হয়েছে অবস্থা সঙ্কটাপন্ন।

আজিমউদ্দিন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় এর অধ্যাপক হারুনর রশীদ হাওলাদারের কাছে জনতে চাইলে সে বলেন আমি একটি ছাত্রকে বহিরাগতরা আহত করেছে দেখেছি হসপিটালে নিয়েছে। অপরাধীদের ভিডিও ফুটেজ দেখে সনাক্ত করবো বলে সাংবাদিক এড়িয়ে যান।

তবে এই অপরাধ চক্রটি কার নেতৃত্বে বা কার নির্দেশে চলে তা অনুসন্ধান চলছে।

এই ঘটনায় ১০ ই নভেম্বর বুধবার রাতে গাজীপুর সদর থানায় সামছুল ইসলাম অনিক এর বাবা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২১/১১/২০২১ সদর থানা জিএমপি।

জিএমপি সদর থানার ওসি তদন্ত সৈয়দ রাফিউল করিম এর সাথে কথা হলে বলেন কাজী আজিমউদ্দিন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় এর মাঠে এ ঘটনার খবর পেয়ে ডিউটিরত পুলিশ পৌছায় খবর পেয়ে অপরাধী গন পালিয়ে যায়।পুলিশ তাজউদ্দীন মেডিকেলে চিকিৎসার জন্য পৌঁছে দেন অনিক কে মামলা হয়েছে আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD