ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যু মা-শিশুর

লাইন পেরোতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যু হল এক মহিলা ও তাঁর চার বছরের শিশুপুত্রের। বৃহস্পতিবার দুপুরে দুর্ঘটনাটি ঘটে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের হাওড়া-খড়্গপুর শাখার বাগনান স্টেশনের কাছে। মৃতদের নাম সালমা বেগম (৩৪) এবং সাইনুর রহমান। তাঁদের বাড়ি বাগনানেরই কুলিতাপাড়া গ্রামে।

রেল পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সালমার স্বামী সৈয়দ মইদুল ইসলাম রাজস্থানের জয়পুরে ডেকরেটর সংস্থায় কাজ করেন। তিন ছেলেমেয়েকে নিয়ে সালমা কুলিতাপড়ায় থাকতেন। এ দিন দুপুরে তিনি ছোট ছেলে সাইনুরকে নিয়ে বাগনানেরই চন্দ্রপুরে বাপের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। বেলা ১২টা নাগাদ দুর্ঘটনাস্থলের কিছুটা আগে তিনি অটোরিকশা থেকে নামেন। তারপরে রেললাইন পার হয়ে ফের চন্দ্রপুরের অটো ধরার জন্য যাচ্ছিলেন।

অকুস্থল: শোকার্ত পরিজনরা

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছেলের হাত ধরে সালমা যখন লাইন পার হচ্ছিলেন তখন আপ মেচেদা লোকাল দ্রুত গতিতে এসে পড়ে। ট্রেন কাছাকাছি এসে পড়ায় তাঁকে লাইনে উঠতে অনেকে বারণ করেছিলেন। কিন্তু ততক্ষণে সালমা লাইনে উঠে পড়েন। ফলে, সরে আসার সময় পাননি। ট্রেনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই মা-ছেলের মৃত্যু হয়।

ঘটনাস্থলে আসেন সালমার আত্মীয়েরা। সালমার বাবা আইনাল হক বলেন, ‘‘জামাই কর্মসূত্রে অন্যত্র থাকায় মেয়ে মাঝেমধ্যে আমার কাছে চলে আসত। দু’একদিন থেকে আবার ফিরে যেত। আর আসা হল না।’’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD